নিম পাতা বাটা চুলে দিলে কি হয়?

পাবলিশঃ one month ago
দেখেছেনঃ 110

নিম পাতা বাটা চুলে দিলে কি হয়?

নিম পাতা প্রাচীনকাল থেকেই ঔষধি গুণাবলীর জন্য পরিচিত। চুলের যত্নেও নিম পাতার ব্যবহার বহুল প্রচলিত। নিম পাতা বাটা চুলে লাগালে চুলের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে সাহায্য পাওয়া যায়।


নিম পাতা বাটা চুলে লাগানোর কিছু উপকারিতা:


খুশকি দূর করে: নিম পাতায় অ্যান্টি-ফাঙ্গাল এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকে যা খুশকির জীবাণু দূর করে।

চুলকানি কমায়: মাথার ত্বকের চুলকানি দূর করতে নিম পাতা খুবই কার্যকর।

চুল পড়া কমায়: নিয়মিত নিম পাতা ব্যবহার চুলের গোড়া শক্ত করে এবং চুল পড়া কমায়।

চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়: নিম পাতায় থাকা বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে এবং চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়।

চুল নরম করে: নিম পাতা চুল নরম, মসৃণ এবং ঝকঝকে করে তোলে।

頭皮を健康に保つ: নিম পাতা মাথার ত্বক পরিষ্কার করে এবং ত্বকের স্বাস্থ্য রক্ষায় সাহায্য করে।

নিম পাতা বাটা চুলে লাগানোর পদ্ধতি:


প্রয়োজনীয় উপকরণ:

৫-৬ টি নিম পাতা

পরিমাণমতো পানি

প্রস্তুত প্রণালী:

নিম পাতা ভালো করে ধুয়ে পানিতে সিদ্ধ করে নিন।

পাতাগুলো নরম হয়ে গেলে পানি ছেঁকে নিয়ে পাতাগুলো ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।

এবার এই পেস্ট মাথার ত্বকে এবং চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন।

৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা পর চুল ধুয়ে ফেলুন।

কিছু টিপস:


সপ্তাহে দুইবার নিম পাতা বাটা চুলে লাগালে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

যদি ত্বকে অ্যালার্জি থাকে তাহলে নিম পাতা ব্যবহারের আগে পরীক্ষা করে নিন।

চোখে যেন নিম পাতার রস না লাগে সাবধান থাকুন।

উপসংহার:


নিম পাতা চুলের জন্য একটি অত্যন্ত উপকারী ঔষধি উপাদান। নিম পাতা বাটা চুলে লাগালে খুশকি, চুলকানি, চুল পড়া ইত্যাদি সমস্যার সমাধানে সাহায্য পাওয়া যায়। এছাড়াও নিম পাতা চুলের বৃদ্ধি বাড়াতে এবং চুল নরম করতেও সাহায্য করে।


তথ্যসূত্র:


নিম পাতা সম্পর্কিত অন্যান্য প্রশ্ন সমূহ

নিম পাতার ব্যবহার কি?
নিম পাতা কি?
নিম পাতা কিভাবে ব্যবহার করা হয়?
প্রতিদিন সকালে খালি পেটে নিম পাতার রস খেলে কি হয়?
নিম পাতার রস প্রতিদিন খেলে কি হয়?
নিম পাতা বাটা চুলে দিলে কি হয়?
নিম পাতা বেটে মুখে দিলে কি হয়?
নিম পাতার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কি?
নিম পাতার উপকারিতা কী ?