হেমন্তকাল এর দৃশ্য দেখতে কেমন?

পাবলিশঃ one year ago
দেখেছেনঃ 2335

হেমন্তকালের দৃশ্য

হেমন্ত ঋতু হলো ষড়ঋতুর চতুর্থ ঋতু। কার্তিক ও অগ্রহায়ণ মাসের সমন্বয়ে গঠিত এই ঋতুটি বাংলা বর্ষপঞ্জির অক্টোবর-নভেম্বর মাসের সাথে মিলে যায়। শরৎকালের পর এই ঋতুর আগমন। এর পরে আসে শীত। তাই হেমন্তকে বলা হয় শীতের পূর্বাভাস।

হেমন্তকালের দৃশ্য সত্যিই মনোমুগ্ধকর। প্রকৃতি যেন নতুন রূপে সেজে ওঠে। আকাশ পরিষ্কার ও নীল হয়ে ওঠে। সকালের দিকে হালকা কুয়াশা দেখা যায়। গাছের পাতায় হলুদ, লাল, ও কমলা রঙের মিশ্রণ দেখা যায়। ফুলের সমারোহ দেখা যায়। প্রকৃতিতে নতুন প্রাণের সঞ্চার দেখা যায়।

হেমন্তকালে দেখা যায় এমন কিছু দৃশ্যের বর্ণনা নিম্নরূপ:

  • আকাশ: হেমন্তকালে আকাশ পরিষ্কার ও নীল হয়ে ওঠে। সকালের দিকে হালকা কুয়াশা দেখা যায়।
  • গাছপালা: গাছের পাতায় হলুদ, লাল, ও কমলা রঙের মিশ্রণ দেখা যায়। এছাড়াও, ধানের শীষ ঝলমলে সোনালি রঙের হয়ে ওঠে।
  • ফুল: হেমন্তকালে শিউলি, কামিনী, গন্ধরাজ, মল্লিকা, ছাতিম, দেবকাঞ্চন, হিমঝুরি, রাজঅশোক, ইত্যাদি ফুল ফোটে।
  • প্রাণীজগত: হেমন্তকালে পাখিরা গান গায়। মৌমাছিরা মধু সংগ্রহ করে।

হেমন্তকালে প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য অনেকেই বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে যান। এছাড়াও, এই সময় বিভিন্ন উৎসব-পার্বণ উদযাপিত হয়।

হেমন্তকাল এর দৃশ্য দেখতে কেমন?

হেমন্তকালের দৃশ্য অত্যন্ত মনোহর। এই ঋতুটির সাথে আসতে আসতে গ্রীষ্মকালের উষ্ণতা কমে আসে এবং ঠাণ্ডার আগমন হয়। এর ফলে প্রকৃতি সাধারণত শীতল ও নীলিমার প্রধান রঙ প্রদর্শন করে।


বাগান, ক্ষেত, পর্বত, নদীর তীর, খাদ্য ফসলের ক্ষেতের পর্যায়ে সাধারণত হেমন্তে আর্থিক ও পরিবারিক কাজে নিখুঁত কৃষকদের দৃশ্য দেখা যায়। পালঙ্গা ও বাগিচা থেকে বণিকের স্থানে পথে সেললার, গাড়ীর, সাইকেলের দৃশ্যও সাধারণ। মুক্ত আকাশে পতাকার ছড়াছড়ি, বাতাসে ঝর্ণার শব্দ এবং পাখির চিরচিট মধ্যে বেহায়া করে বিচরণ করা দেখা যায়।


হেমন্তকালে বাগানে পাখির চিরচিট এবং ফুলের সংগ্রহ প্রচুর দেখা যায়। সংগ্রহ করা পুষ্পগুচ্ছ ছাড়াও হেমন্তকালে বিভিন্ন প্রকৃতির ফুলের আকর্ষণীয় রঙ দেখা যায়। মুক্ত আকাশে বৃষ্টির পাতার মধ্যে পড়ার দৃশ্যও সহজেই পাওয়া যায়।


হেমন্তে প্রদূষণ হয় কম, বা অবস্থানের কারণে একে প্রদূষণ মুক্ত ঋতু হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাই বাগান, নদীর তীর, পর্বত এবং নিকটবর্তী প্রাকৃতিক অঞ্চলের দৃশ্য একটুখানি পরিবেশনার দিকে দিকে পাওয়া যায়।


এছাড়াও হেমন্তে সকালে সূর্যের উদয় ও অবস্থান সাধারণত প্রদর্শিত হয়। সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের দৃশ্য অদ্ভুত এবং রোমাঞ্চকর। প্রশান্ত নীল আকাশের পাশাপাশি মেঘ এবং মেঘের রঙের বৈচিত্র্য দেখা যায়।


হেমন্তে সবুজ বন এবং গাছপালা সাধারণত শুষ্ক হয়ে যায়, কিন্তু কিছু গাছ ও গাছপালা তাঁবুয়ে পাতগুলি ধারণ করে থাকে। এছাড়াও হেমন্তে ফুলের তালিকা কম হয়, কিন্তু কিছু ফুল সুন্দর ভাবে প্রকাশ করে থাকে। সাধারণত পাতা ও ফুলের রঙ হেমন্তকালে হয়তো সামান্য বেদনাদায়ক হয়।


সুন্দর দৃশ্য, নিখুঁত বাতাস এবং শান্ত পরিবেশে হেমন্ত কাল সময়ে বেশিরভাগ লোকে পিকনিক, ভ্রমণ বা অন্যান্য বিনোদনের সুযোগ নেয়। প্রকৃতির সৌন্দর্য ও পরিশ্রমশীলতা হেমন্তকালের দৃশ্যগুলির একটি অপরিহার্য অংশ।

হেমন্তকাল সম্পর্কিত অন্যান্য প্রশ্ন সমূহ

হেমন্ত কালে কি কি ফুল ফোটে ?
হেমন্ত ঋতুর বৈশিষ্ট্য কি?
হেমন্তকাল এর দৃশ্য দেখতে কেমন?
হেমন্ত কালে কি কি উৎসব হয়?
হেমন্তকাল কে ঋতু রানী বলা হয় কেন?
হেমন্তকাল কে উৎসবের ঋতু বলা হয় কেনো?